আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করেছে মালয়েশিয়াস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশন।

0 10

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করেছে মালয়েশিয়াস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশন। কোভিড- ১৯ এবং মালয়েশিয়া সরকারের বিধি- নিষেধের কারণে এ বছর ভাষা দিবসের অনুষ্ঠান স্বল্প পরিসরে এবং শুধুমাত্র হাইকমিশনের কর্মকর্তা কর্মচারীদের উপস্থিতেই অনুষ্ঠিত হয় ।

রবিবার রাজধানী কুয়ালালামপুরে হাইকমিশন চত্বরে সকাল সাড়ে ৮টায় শুরু হয় আনুষ্ঠানিকতা। অনুষ্ঠানের শুরুতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও পতাকা অর্ধনমিত করেন হাইকমিশনার মোঃ গোলাম সারওয়ার।

পরে হাইকমিশন চত্ত্বরে নির্মিত অস্থায়ী শহীদ মিনারের বেদীতে বাংলাদেশ হাইকমিশন এবং বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও প্রবাসী সংগঠন শ্রদ্ধা নিবেদন করে। পরে হাইকমিশনের হলরুমে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয় । আলোচনা সভায় ভাষা শহীদদের স্মরণে নিরবতা পালন এবং দেশ ও জাতির সমৃদ্ধি ও শান্তি কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়।

হাইকমিশনের প্রথম সচিব ও দূতালয় প্রধান রুহুল আমিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতির বাণী পাঠ করেন বাংলাদেশ হাইকমিশনের উপও- হাইকমিশনার (মিনিস্টার) খোরশেদ আলম খস্তগীর, প্রধানমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন কাউন্সিলর (শ্রম) জহিরুল ইসলাম, পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন কাউন্সিলর (শ্রম ২) হেদায়েতুল ইসলাম মণ্ডল এবং পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন কাউন্সেলর (রাজনৈতিক) তাহমিনা ইয়াসমিন ।

অনুষ্ঠানে হাইকমিশনার মোঃ গোলাম সারওয়ার বলেন, ভাষার জন্য সংগ্রাম ও জীবন দেয়ার ইতিহাস বিশ্বে একমাত্র বাঙালি জাতিরই আছে। এই ভাষা সংগ্রামের অর্জনেই লুকিয়ে ছিল বাংলাদেশের স্বাধীনতা, যা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে বাঙালি অর্জন করে।

তিনি বাংলাদেশের উন্নয়নে প্রবাসীদের অবদানের কথা কৃতজ্ঞতার সঙ্গে স্মরণ করেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.