রাজধানীতে ময়লার ব্যবসার নিয়ন্ত্রণ নিতেই রশিদ হত্যা।

1 10

ঢাকায় দক্ষিণখানের আইনুশবাগ চাঁদনগর এলাকার চার নম্বর রোডে ময়লার ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ নিতেই রশিদ হত্যা।  নিহত ব্যবসায়ী আব্দুর রশিদের সঙ্গে আওয়ামী লীগ নেতা আমিনুল ইসলাম হান্নান ওরফে জাপানি হান্নানের ময়লার ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ নিয়ে দ্বন্দ্ব ছিল। ওই কোন্দলের জের ধরেই এ হত্যাকাণ্ড ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত আওয়ামী লীগ নেতা আমিনুল ইসলাম হান্নান ওরফে জাপানি হান্নানসহ ৬ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।বুধবার দুপুরে গ্রেপ্তারের বিষয়টি ডিএমপির উত্তরা বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মোহাম্মদ শহিদুল্লাহ ইসলাম নিশ্চিত করেছেন। সেই সঙ্গে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত দুটি অস্ত্রও উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

ডিএমপি অফিসার জানান, গুলিবিদ্ধ অবস্থায় রশিদ নামের এক ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত হান্নানসহ ৬ জনকে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ। সেই সঙ্গে এ হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত দুটি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।তবে ঘটনাটি পূর্বশত্রুতার কারণে ঘটে থাকতে পারে বলেও ধারণা করছে পুলিশ।

তার আগে, বেলা সাড়ে ১১টার দিকে দক্ষিণখান আইনুশবাগ এলাকায় আওয়ামী লীগ নেতা আমিনুল ইসলাম হান্নান ওরফে জাপানি হান্নানের বাসার সামনে ওই হত্যাকাণ্ড ঘটে। রক্তাক্ত অবস্থায় রাস্তায় পড়ে থাকা ওই ব্যবসায়ীর মরদেহ স্থানীয়রা হাতে হাতে ধরে একটি ভ্যানে উঠিয়ে দেন। পরে উত্তেজিত জনতা হান্নানের বাড়ির সামনে পার্ক করে রাখা তার একটি গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়।

এই বিষয়ে দক্ষিণখান থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুল আজিজ জানান, দক্ষিণখানে জাপানি হান্নানের বাসার সামনে আব্দুর রশিদ গুলিতে আহত হন। পরে হাসপাতালে নেয়ার পথে তিনি মারা যান।

Leave A Reply

Your email address will not be published.