দিনদিন অপ্রাসঙ্গিক হয়ে পড়ছে বিএনপি : কাদের

0 11

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহনমন্ত্রী ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের মন্তব্য করে বলেন, বিএনপি সুবিধাবাদী রাজনৈতিক চরিত্র অনেক আগেই জনগণের কাছে স্পষ্ট হয়ে গেছে এমন , রাজনীতিতে বিএনপি দিনদিন অপ্রাসঙ্গিক হয়ে পড়ছে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের মন্তব্য করে বলেন, বিএনপির দ্বিচারিতা রাজনীতির কারণে জনগণ তাদের মাঠ থেকে দূরে সরিয়ে দিচ্ছে। আজ বৃহস্পতিবার সকালে তাঁর সরকারি বাসভবনে নিয়মিত ব্রিফিংকালে এসব কথা বলেন সড়ক পরিবহনমন্ত্রী।

ওবায়দুল কাদের আরও মন্তব্য করে বলেন, বিএনপি হঠাৎ গত মঙ্গলবার উদোর পিন্ডি বুধোর ঘাড়ে চাপানোর হাস্যকর অপচেষ্টা করেছে ,এদেশের রাজনীতিতে কে কাকে পৃষ্ঠপোষকতা দিয়ে যাচ্ছে তা এখন দিবালোকের মতো স্পষ্ট। 

তাদের ডাবল স্ট্যান্ডার্ড নীতি সম্পর্কে এদেশের জনগণ ভালো করেই জানে মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, তারা বলেছে কেউ লকডাউন মানছে না, কার্যকর হচ্ছে না, অথচ এখন সরকার সর্বাত্মক লকডাউন দেওয়ার পর বলছে সরকার লকডাউনের নামে শাটডাউন দিয়ে মানুষকে কষ্ট দিচ্ছে। বিএনপির এমন দ্বিচারিতা রাজনীতির মাঠ থেকে জনগণ তাদের দূরে সরিয়ে দিচ্ছে।

সেতুমন্ত্রী মনে করেন, বিএনপির নীতি হচ্ছে সরকার যা করবে, ভালো-মন্দ যাচাই না করে তার বিরুদ্ধে বলতে হবে এবং তারা তোতাপাখির মতো তাই করে যাচ্ছে।বিএনপি তাদের ব্যর্থ রাজনীতি ঢাকতে জনগণ ও পুলিশকে প্রতিপক্ষ হিসেবে বেছে নিয়েছে বলেও মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

তিনি বলেন, সরকার নয়, বিএনপিই জনগণকে তাদের প্রতিপক্ষ বানিয়ে প্রতিশোধ নিচ্ছে। তাদেরকে জনগণ ভোট দেয় না বলে সহিংসতা করে এখন জনগণের জানমালের ক্ষতি করছে তারা।

 সেতুমন্ত্রী উল্লেখ করে বলেন, শেখ হাসিনা সরকার জনগণের সরকার , জনগণের জন্যই শেখ হাসিনার প্রতিটি কর্মসূচি।

বিএনপির উস্কানিতে ২৬ মার্চ  হেফাজতে ইসলাম যে তাণ্ডব চালিয়েছিল, তার ১৮ দিন পরে গত মঙ্গলবার বিএনপি বলছে ২৬ মার্চ সহিংসতার ঘটনা পরিকল্পিত, -এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকও তাই মনে করেন। বলেন, সেদিনের এবং পরবর্তী ঘটনাবলী দেশকে অস্থিতিশীল করার এক গভীর চক্রান্ত ছিল এবং তা ছিল পরিকল্পিত।

 

ওবায়দুল কাদের বলেন, এই পরিকল্পনায় স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তিকে উস্কানি দিয়েছে বিএনপি এবং এই তাণ্ডবলীলা বিএনপি ও তার দোসরদের পূর্বপরিকল্পিত।

Leave A Reply

Your email address will not be published.