দেড় লক্ষ টাকার একটি গরু ভুল চিকিৎসায় মারা গিয়েছে

1 163

চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার ৭নং পুটিবিলা ইউনিয়নের ৮ ওয়ার্ডের নতুন বাজারের পশ্চিম পাশে বল্লনী বর পাড়ার আবু ছালাম এর দেড় লক্ষ টাকার একটি গরু ভুল চিকিৎসায় মারা গিয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

সরেজমিনে গেলে গরুর মালিক আবু ছালাম বলেন আমার গরুর পায়ে সাধারণ রোগ দেখা দিলে আমি তখন পশু ডাক্তার রঞ্জিত শংকরকে গরুর বিষয়টি জানায়, ডাক্তার রঞ্জিত গত ০২-০২-২০২১ ইং অনুমানিক ৬ ঘটিকার সময় আমার বাড়িতে এসে গরুটি দেখে, দেখার পর তিনি সাথে সাথে গরুটি কে ৩টি ইনজেকশন দেয়।

এরপরে এটকি ওষুধের প্রেপসিশন লিখে দিয়ে বলেন এই ওষুধ গুলো গরুকে খাওয়াবেন, আমি এই ওষুধ গুলো ০৩-০২-২০২১ ইং তারিখ পর্যন্ত গরুটিকে  সেবন করায়, কিন্তুু ইনজেকশন এবং ওষুধ গুলো সেবন এর পর থেকেই আমার গরু কোনরকম আহার গ্রহণ করতেছেনা।

পরে আমি ডাক্তার রঞ্জিত এর যোগাযোগ করিলে তিনি বলেন ঐ ওষুধ গুলো চালিয়ে যান, ২/৩ দিন পরে গরু ঠিকভাবে আহার করবে, পরদিনই দেখি আমার গরুটি কাঁপতে থাকে,আমি গরুর কাঁপনি দেখে পুনরায় রঞ্জিত এর সাথে যোগাযোগ করলে সেই বলে গরুটির গায়ে জ্বর আছে তাই গরুটি কাঁপতেছে,এবং পুনরায় ঐ ওষুধ গুলো চালিয়ে যাও।

পরেরদিন সকালে গরুটির অবনতি ঘটলে আমি পুনরায় রঞ্জিতের সাথে যোগাযোগ করি, তখন রঞ্জিত বলে আমি এখন চট্টগ্রামে আসছি তুমি ফার্মেসীতে গিয়ে আমাকে ফোন করো,আমি সাথে সাথে পার্মেসীতে গিয়ে রঞ্জিত ফোন দিয়েছি, তখন রঞ্জিত পার্মেসীওয়ালার সাথে কথা বলে,পরে আমি তার দেওয়া ওষুধ গুলো নিয়ে আসি।

পরের দিন ০৫-০২-২০২১ ইং সকালে ওষুধ গুলো একবার খাওয়ায়ছি এবং বিকেলে ৬ টার সনয় আরেক বার খাওয়ায়ছি, ওষুধ গুলো খাওয়ার এক ঘন্টা পরে আমার গরুটি মারা যায়।

পরে আমি বিষয়টি রঞ্জিত কে জানালে সেই বলে গরু যখন মারা গিয়েছে তাহলে আমার কিছু করার নেই, তাই আমি সঠিক বিচার চেয়ে লোহাগাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর একটি অভিযোগ দায়ের করি।

এই বিষয়ে পশু ডাক্তার রঞ্জিতের কাছ থেকে জানতে চাইলে, তিনি বলেন এখানে আমার কোন ভুল নেই, যদি মনে করেন আমার ভুল আছে তাহলে গরুর মালিক কে আমার নামে উপজেলা প্রাণী বিষয়ক অফিসে অভিযোগ করতে বলেন।

পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন আমি অভিযোগ একটা পেয়েছি, বিষয়টি সঠিকভাবে দন্ত করা হবে।

 

1 Comment
  1. […] দেড় লক্ষ টাকার একটি গরু ভুল চিকিৎসায়… […]

Leave A Reply

Your email address will not be published.