অনলাইনে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের উস্কানি দেয়ায় লন্ডনে এক ব্যক্তির কারাদণ্ড।

1 24

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে অনলাইনে প্রচারণার দায়ে লন্ডনে এক বাংলাদেশীকে দোষী সাব্যস্ত করে কারাদণ্ড দিয়েছে ব্রিটেনের আদালত।তার বিরুদ্ধে বাংলাদেশ সরকারের বিরুদ্ধে সন্ত্রাস ও সহিংসতা ছড়ানোর অভিযোগ রয়েছে ।

হামজা ২০১৫ সাল থেকে অনলাইনে বেশ কয়েকটি পোস্টে বাংলাদেশ সরকারের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী ও সহিংসতার খবর ছড়িয়ে আসছেন, জানিয়েছে পুলিশ। তার ওইসব পোস্টের মাধ্যমে হামজা অন্যদেরকে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ও সরকারের বিরুদ্ধে গুরুতর সহিংসতা করার আহ্বান জানিয়েছে।২০১৮ সালের জুলাই মাসে লন্ডন পুলিশ হামজাকে দক্ষিণ লন্ডনে তার কর্মক্ষেত্র থেকে গ্রেফতার করে। ওই সময় পুলিশ হামজার কম্পিউটার, ফোন ও মেমরি কার্ডগুলো ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য জব্দ করে। ২০১৯ সালের ২৮ জানুয়ারি হামজার বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবিরোধী আইন ২০০৬-এর আলোকে অভিযোগ দায়ের করা হয়। সেখানে বলা হয়, ২০১৫ সালের ১ সেপ্টেম্বর থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত হামজা অনলাইনে যেসব পোস্ট দেন, তাতে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের উস্কানি দেয়া হয়।ব্রিটিশ পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম কমান্ডের প্রধান কমান্ডার রিচার্ড স্মিথ জানান, হামজার উগ্রপন্থী ও একটি দেশবিরোধী স্ট্যাটাস সম্পর্কে আমাদের জানানোর জন্য আমি জনসাধারণকে ধন্যবাদ জানাই।

এছাড়া তিনি আরো বলেন, আশা করছি যে হামজার এই গ্রেফতারের মাধ্যমে জনসাধারণ একটি ম্যাসেজ পাবে। যদি কেউ অনলাইনে উস্কানিমূলক প্রচারণা চালায় তাহলে আমরা তার বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেব।

Leave A Reply

Your email address will not be published.