৯০ ঊর্ধ্ব প্রবীণরা মাসিক ৩ হাজার টাকা ভাতা পাবেন।

0 14

৯০ ঊর্ধ্ব বয়সী দেশের প্রবীণ নাগরিকদের জীবনমান নিরাপত্তার কথা ভেবে এবার  ‘বিশেষ বয়স্ক ভাতা’ চালু করার মহাপরিকল্পনা নিতে যাচ্ছে সরকার। সামাজিক নিরাপত্তা সংক্রান্ত কেন্দ্রীয় কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় এই বিষয়ে একটি বিশদ প্রস্তাব ও নীতিমালা প্রস্তুত করছে বলে জানা গেছে।

এদিকে বিশেষ বয়স্ক ভাতার এই খসড়া প্রস্তাবনা থেকে জানা যায়, নতুন এই কর্মসূচি চালু হলে চলমান বয়স্ক ভাতার সঙ্গে ৯০ বছরের বেশি বয়সীরা প্রতি মাসে ৩ হাজার টাকা করে পাবেন।

আরও জানা যায়, সামাজিক নিরাপত্তার আওতায় সারা দেশে মাসিক ৫০০ টাকা হারে বয়স্কভাতা সুবিধাভোগীর সংখ্যা ৪৯ লাখ। বিশেষ বয়স্কভাতা চালু হলে অন্তত দুই লাখ মানুষ এই সুবিধার আওতায় আসবে বলে তারা মনে করেন।

বয়স্ক ভাতা চালুর বিষয়ে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা ঢাকাটাইমসকে জানিয়েছেন, খসড়া এই প্রস্তাবে অর্থ মন্ত্রণালয় অনুমোদন দিলে আগামী অর্থবছর থেকেই বিশেষ বয়স্ক ভাতা চালু করা যাবে।আমাদের আর্থ-সামাজিক প্রেক্ষাপটে ৮০ বা এর বেশি বয়সীরা বেশি অর্থনৈতিক ঝুঁকিতে রয়েছেন। সরকার এর মধ্যে ৯০ বছরের বেশি বয়সীদের বিশেষ নজর দিতে চায়, এজন্য বিশেষ বয়স্ক ভাতা চালুর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

এছাড়া জানা যায়, বয়স্ক ভাতাভোগীর সংখ্যা ৩০ লাখ থেকে বাড়িয়ে ৪৯ লাখ করা হয়েছে। যদিও ভাতাভোগীর সংখ্যা ৬৫ লাখে উন্নীত করার পরিকল্পনা ছিল। তবে সেই সভায় ৯০ বছরের ঊর্ধ্বে বয়স্কদের জন্য ‘বিশেষ ভাতা কর্মসূচি’ বাস্তবায়ন বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়নি।সরকার দেশে সর্বপ্রথম ১৯৯৮-৯৯ অর্থবছর থেকে বয়স্ক ভাতা কার্যক্রম চালু করে। সে সময় ৪ লাখ ৪ হাজার জনকে বয়স্ক ভাতা দেয়া হয়। তখন প্রতি মাসে ১০০ টাকা করে ভাতা দেয়া হতো। তারপর মাসিক ১০০ টাকা থেকে কয়েক দফায় বাড়িয়ে সেই ভাতা ৫০০ টাকা করা হয়। তবে বিশেষ ভাতার খসড়া প্রস্তাবটি চূড়ান্ত অনুমোদন পেলে আগামী অর্থ বছরেই তা কার্যকর হবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.